গঠনতন্ত্র

”গণিত নয় ভয়,বিশ্ব করো জয়”

লাইসিয়াম গণিত ও বিজ্ঞান সংঘ

ভূঞাপুর, টাঙ্গাইল।

গঠনতন্ত্র

———————————————————————-

১. পরিচিতি

ক্লাবটি লাইসিয়াম গণিত ও বিজ্ঞান সংঘ নামে পরিচিত হবে।

২. প্রতীক

ক্লাবের লোগো-

ক্লাবের স্লোগান-”গণিত নয় ভয়,বিশ্ব করো জয়”

৩. লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

নিম্নলিখিত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ক্লাবটি প্রতিষ্ঠিত হলো-

ক. বিজ্ঞানমনস্ক, অসাম্প্রদায়িক, মানবিকসমাজ প্রতিষ্ঠা করা।

খ. বাংলাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে গণিত ও বিজ্ঞানভিত্তিক সংগঠন গড়ে তোলা।

গ. গ্রাম পাঠাগার আন্দোলনকে জোরদার করা

৪. নিরপেক্ষতা

ক্লাব জাতি ধর্ম বর্ণ গোত্র নির্বিশেষে সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। কোনো বিশেষ ধর্মীয় বা রাজনৈতিক বা জাতীয় বিশ্বাসের প্রতি ক্লাবের আনুগত্য থাকবে না।

৫. ক্লাবের ব্যাপ্তি

টাঙ্গাইল জেলার অন্তর্গত ভূঞাপুর উপজেলা ব্যাপী সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্লাবের কার্যক্রম সমভাবে বিস্তৃত থাকবে।

৬. সদস্যপদ প্রাপ্তি

ক. তিনি ভূঞাপুর উপজেলার যেকোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৩য় থেকে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী হবেন।

খ. তিনি প্রতিষ্ঠানের ও ক্লাবের সকল নিয়মাবলি মেনে চলবেন।

গ. তিনি গণিত ও বিজ্ঞানের অনুরাগী হবেন এবং গণিত ও বিজ্ঞানের চর্চা করবেন।

৭. সদস্যপদের ধরণ

ক. প্রাথমিক- ৩য় থেকে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এই ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত হবে।

খ. জুনিয়র- ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এই ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত হবে।

গ. সেকেন্ডারি- ৯ম ও ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এই ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত হবে।

৮. ক্লাব কর্তৃপক্ষ

ক্লাবের পরিচালনা পর্ষদ/কমিটি ক্লাবের সদস্যদের কর্তৃক সংখ্যারিষ্ঠের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন। ক্লাবের একটি ৪ সদস্যবিশিষ্ট উপদেষ্টা পর্ষদ রয়েছে। তবে উপদেষ্টা পর্ষদ ক্লাবের নির্বাহী কাজে প্রভাব বিস্তার করবেন না।

৯. পদের ক্ষমতা

ক. সভাপতি

সভাপতি ক্লাবের প্রধান হবেন।তিনি সভা আহবান করবেন, সকল সভায় সভাপতিত্ব করবেন এবং প্রয়োজনীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করবেন।

খ. সাধারণ সম্পাদক

তিনি সভাপতির পক্ষে ক্লাবের সকল নির্বাহী কার্যাদী পরিচালনা করবেন। তিনি ক্লাবের নির্বাহী ক্ষমতার অধিকারী হবেন এবং অন্যান্য সদস্যদের নিয়ন্ত্রণ করবেন।সভাপতির আহবানে সভার আয়োজন করবেন এবং বাৎসরিক রিপোর্ট তৈরি করবেন। বাৎসরিক রিপোর্ট গণিত উৎসব কমিটির কাছে প্রেরণ করতে হবে।

গ. অর্থ সম্পাদক

ক্লাবের সকল আয় ব্যয়ের দৈনন্দিন হিসাব রাখবেন এবং তা সভাপতি কর্তৃক অনুমোদিত করে নিবেন। সর্বোপরি তিনি ক্লাবের অর্থ বিষয়ক যে কোনো কাজের তত্বাবধায়ক থাকবেন।

১০. কমিটি নির্বাচন, মেয়াদ ও বিলোপ

কার্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদকাল হবে ১ বছর। একটি কমিটির মেয়াদ শেষ হলে তারা ক্লাবের ক্ষমতা ৩ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটির হাতে তুলে দিবেন। আহ্বায়ক কমিটি ১ মাসের মধ্যে নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করবেন এবং ক্লাবের ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন।